/ / জাগরণ – দীপন বন্দ্যোপাধ্যায়

জাগরণ – দীপন বন্দ্যোপাধ্যায়

শেয়ার করুন

সৃষ্টি-সেরা নারী-রে তুই, তবুও অনাহূত,
বোঝা ভেবে আজন্ম অপমান, আজও অব্যাহত।
মাটির প্রতিমা পুজিতা হন, জ্যান্ত প্রতিমা লাশ,
বিকৃত পুরুষ, বিকৃত বাসনা, ঘটায় সর্বনাশ।
পুরুষ-জাতির ভোগ্যা হয়ে, হারাস নিজ শরীর,
মৌন পৃথিবী দেখে শুনে, স্বার্থ মগ্নেই বধির।
তিন কিংবা তিরাশি হোক, কেউই পেলনা ছাড়,
মানবরূপী দস্যু পশুর, অবাধ অত্যাচার।
‘ধর্ষিতা’ তকমা নিয়ে-রে তুই, সম্মান খুঁজিস বাঁচার,
ধর্ষক ঘোরে বুক উঁচিয়ে, আজব এ-কি বিচার!
লাঞ্ছনা-গঞ্জনার তকমা ঝেড়ে, জাগ-রে দুর্জয় নারী!
সগর্বে বল, ‘দেখরে পুরুষ! আমারাও সব পারি’।
পুরুষ নারী সবাই সমান,নেইকো ভেদা-ভেদ,
নারী হয়ে জন্ম নিলে, কেনরে বৃথা খেদ?
সম্মান নিয়ে ছিনিমিনি, সহ্য করিস-নে আর,
দুর্বল হয়ে পদে-পদে, খাস-নে তোরা মার।
প্রতিভা-প্রভায় সর্বক্ষেত্রে,হোসরে অনন্যা-জয়ী,
আঁধার দেশেও দৃঢ় শপথে, স্বপ্ন বুনে রই।

 

শেয়ার করুন

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *