আমাদের ধর্ম হোক ফসলের সুষম বন্টন – সৌম্য শাহীন, মৃন্ময় সেনগুপ্ত

আমাদের ধর্ম হোক ফসলের সুষম বন্টন – সৌম্য শাহীন, মৃন্ময় সেনগুপ্ত

গত ৫ই এপ্রিল, বুধবার রাজধানী দিল্লিতে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন জনবিরোধী, সাম্প্রদায়িক বিভাজনমূলক ও কর্পোরেটবান্ধব নীতিসমূহের বিরুদ্ধে সংগ্রামী শ্রমিক-কর্মচারী-কৃষক-ক্ষেতমজুরদের ডাকে এক বিরাট সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জমায়েত হওয়া লক্ষাধিক খেটে খাওয়া মানুষের সুশৃঙ্খল মিছিল থেকে মুহুর্মুহু ডাক উঠল—‘মোদী হঠাও, দেশ বাঁচাও’। এর আগেও আমরা নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলন এবং কৃষক আন্দোলনের সময়ে…

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৭) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়
|

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৭) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়

সপ্তম পর্ব  ১৯২০ এর দশক ভারত তথা বাংলার ইতিহাস খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ‘ভদ্রলোক’ সমাজের শিক্ষিতদের কাছে ক্রিকেট গ্রহণ করা ও ছড়িয়ে দেওয়ার পেছনে কতকগুলি কারণ ছিল। বোরিয়া মজুমদারের মতে, ক্রিকেট ছিল শিক্ষিত ভদ্রলোকদের কাছে অহিংস পদ্ধতিতে ব্রিটিশরাজের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামা। সেই সময়ে যখন মূলত ১৮৫৭ সালের পরবর্তী সময় সশস্ত্র আন্দোলনকে আর ছড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছিল না। তাছাড়া…

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি চরিত্র – আহমদ ছফা
|

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি চরিত্র – আহমদ ছফা

বাংলা সাহিত্যে ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ উপন্যাসটির কোনো জুড়ি নেই। এই উপন্যাসের একটি চরিত্রে মানিকবাবু যে সুগভীর ইতিহাসবোধ, জীবন অভীপ্সা এবং মনীষার পরিচয় দিয়েছেন, বোধকরি চরিত্রসৃজনকুশলতায় তারো কোনো জুড়ি নেই। ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ উপন্যাসটির কথা উঠলেই কুবের, মালা, কপিলা, রাসু, গনেশ ইত্যাকার মানুষদের মুখগুলো আপনা-আপনিই চোখের সামনে ভেসে ওঠে। মানিকবাবু তেমন শিল্পী (বিশেষ করে ‘পদ্মা নদীর…

অখিল ভুবনে সুরের মেলা – প্রবীর মিত্র

অখিল ভুবনে সুরের মেলা – প্রবীর মিত্র

ফুলের উপর ঘুমিয়ে পড়ে ফুলের মধু খেয়েদশদিকে নাম ছড়িয়ে গেল তোমার গান গেয়েগান ফুরোল পাড়া জুড়োল ফুর্তি হোল দেশেচোখের জলে বাঁশুরিয়ার রক্ত এসে মেশেএসব কথা উঠলে পড়ে, উথলে ওঠে রোষ গান কি কারও কেনা! নাকি গোলাম?সে সব কথা থাক। বাংলাগানে শীতলপাটি পাতাতাতে রাজার মতো ঘুমিয়ে আছেন অখিলবন্ধু ঘোষ। —কবি পার্থজিত চন্দ একটা সময় রেকর্ড প্লেয়ার-এ…

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৬) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়
|

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৬) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়

ষষ্ঠ পর্ব  প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন অন্যত্র ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পর্যায় বন্ধ হয়ে যায়। বহু ক্রিকেটার যুক্ত হয় বিশ্বযুদ্ধে। অনেকেই মারা যান, আহত হন। যদিও সৈন্যদলের মধ্যে ক্রিকেট খেলা অব্যাহত ছিল ভালোরকমই।  কলকাতায় ক্রিকেট খেলা কমেনি, উলটে সংখ্যা বেড়ে যায়। ১৯১৪ সালের নভেম্বরে দেখছি বালিগঞ্জ ক্রিকেট ক্লাব ও ক্যালকাটা স্কটিশ ভলান্টিয়ার্স দলের মধ্যে খেলা হচ্ছে। বালিগঞ্জের ১৮১…

অশোকবৃক্ষ, ভারতীয় সাহিত্য ও নিসর্গপ্রতীক – রূপায়ণ ঘোষ

অশোকবৃক্ষ, ভারতীয় সাহিত্য ও নিসর্গপ্রতীক – রূপায়ণ ঘোষ

ভারতীয় ইতিহাস তথা সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে ঋতুবৈচিত্র্যের উপস্থিতি চিরকালীন। পাঁচ হাজার বছরের সুদীর্ঘ ঐতিহ্যে ঋতুকেন্দ্রিক অসংখ্য উৎসব, পূজার্চনা এমনকি সঙ্গীতচর্চার ধারাও অব্যাহত রয়েছে। ভারতীয় তথা উপমহাদেশীয় সাহিত্যে ঋতুচক্রের যে অসামান্য ধারা বিবরণ পাওয়া যায় তার মধ্যে থেকে বসন্ত বর্ণনার স্থান অগ্রগণ্য। তন্ন তন্ন করে এই সাহিত্যের গহীনে ডুব দিয়ে এক অদ্ভুত এবং বিস্ময়কর সমাপতন লক্ষ…

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৫) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়
|

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৫) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়

পঞ্চম পর্ব বঙ্গভঙ্গ চলাকালীন কলকাতার ক্রিকেট খেলায় কোনও প্রভাব পড়েনি। তবে বড়ো কোনও ম্যাচের খবর সেভাবে নেই। কিন্তু এরই মধ্যে ১৯০৯/১০ সালের ডিসেম্বর মাসে ওয়ানডে সিঙ্গল ইনিংসের খেলা হয়েছিল ময়দানে। বাংলার অন্যতম প্রাচীন পাটশিল্পের কারখানা গৌরীপুর জুট মিল যা ম্যাকলিন বেরী বানিয়েছিলেন নৈহাটিতে, তাঁদের সঙ্গে অ্যালায়েন্স ইউনাইটেড জুট মিলের (বিবাদী বাগে অফিস আছে) খেলা হয়।…

হোমস — অনুবাদ, বঙ্গীকরণ ও অন্যান্য – দীপ্তজিৎ

হোমস — অনুবাদ, বঙ্গীকরণ ও অন্যান্য – দীপ্তজিৎ

১৮৮৭ সাল। বিটনস ক্রিসমাস অ্যানুয়ালে প্রকাশিত হল একটি গোয়েন্দা উপন্যাস — “A Study in Scarlet”। লিখলেন স্যার আর্থার কনান ডয়েল। সেই উপন্যাসে ডা. জন ওয়াটসনের সঙ্গে ঘর ভাগাভাগি করে থাকা সেই চিমড়ে, লম্বা, অথচ তুখোড় বুদ্ধিধারী ভদ্রলোকের সঙ্গে প্রথম আলাপ হল পাঠকের। কিন্তু দুঃখের বিষয়, সেই উপন্যাসটি তেমন জনপ্রিয় হয়নি। লেখকও এই আধপাগলা গোয়েন্দাকে নিয়ে…

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৪) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়
|

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৪) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়

চতুর্থ পর্ব ১৯০০ সাল। ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ, বিজ্ঞান-দর্শন-সাহিত্যের আধুনিক সময়ের সূত্রপাতের শ্রেষ্ঠ শতকের সমাপ্তিতে আগমন ঘটছে বিংশ শতাব্দীর। স্বাভাবিকভাবেই ব্রিটিশদের কাছে এর গুরুত্ব ছিল অপরিসীম। বাঙালির ক্ষেত্রে বিষয়টির বর্ণনা পাওয়া যায় বিমল মিত্র-র ‘সাহেব-বিবি-গোলাম’ উপন্যাসে। তখন লর্ড কার্জনের সময়। বাংলা ভাগের ঘটনা তখনও ঘটেনি, কিন্তু ভিতরে ভিতরে চেষ্টা ভালো মতোই চলছে। কয়েক বছরের মধ্যেই তার জের দেখা…

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৩) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়
|

বর্ষশেষের কলকাতা : কলকাতার ক্রিকেট (পর্ব ৩) – সুমিত গঙ্গোপাধ্যায়

যদিও ঠিক বর্ষশেষের ম্যাচ নয়, কিন্তু একটা ম্যাচের বর্ণনা না দেওয়াটা অপরাধ হয়ে যাবে। ১২ই জানুয়ারি, ১৮৯৭। ইডেনে খেলা হয়েছিলো ক্যালকাটা ক্রিকেট ক্লাব বনাম ক্যালকাটা টাউন ক্লাবের ম্যাচ। ক্যালকাটা ক্রিকেট ক্লাবের অন্তত: দুজন খেলোয়াড়কে ভালোভাবেই চেনা যায়। উনিশ শতকের প্রত্নতত্ব চর্চায় মোটামুটি পরিচিত নাম রবার্ট টমাস এবং পরবর্তী কালে রয়্যাল এয়ারফোর্সের অফিসার আলেক্সান্ডার কক্স প্যাটার্সন।…